নতুন আত্মঘাতী গেমে প্রথম মৃত্যুর খবর | |

নতুন আত্মঘাতী গেমে প্রথম মৃত্যুর খবর

ব্লু হোয়েলের পর নতুন আত্মঘাতী গেম হিসেবে আতঙ্ক সৃষ্টি করা ‘মোমো’র প্রভাবে প্রথম কারো মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে এসেছে। ‘মোমো চ্যালেঞ্জ সুইসাইড গেম’ এর প্রভাবে আত্মহত্যা করেছে আর্জেন্টিনার ১২ বছরের এক কিশোরী। এর আগে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এ গেমটি নিয়ে সতর্কতা জারি করেছিল দক্ষিণ আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশ। তার মধ্যেই আর্জেন্টাইন কিশোরির মৃত্যুর খবর এল।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম নিউজ ডট কম ইউকের খবরে বলা হয়, আর্জেন্টিনার বুয়েনস আইরেসে মোমো চ্যালেঞ্জ সুইসাইড গেমটির ফাঁদে পড়ে আত্মঘাতী হয়েছে ১২ বছরের এই কিশোরী।

দেশটির পুলিশ জানায়, হোয়াটসঅ্যাপে মোমোর ছবি শেয়ার করার কিছুক্ষণের মধ্যেই তার বাড়ির পিছন দিকের জমিতে ১২ বছরের মেয়েটির মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

ব্রিটেনসহ ইউরোপে এখনও ছড়ায়নি ওই গেম। তবে এটি গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এর আগে আত্মঘাতী গেম হিসেবে ব্লু হোয়েল বিশ্বব্যাপী আতঙ্ক সৃষ্টি করেছিলো। যার প্রভাবে প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে অনেক আত্মহত্যার খবর প্রকাশ্যে আসে। বাংলাদেশেও এর প্রভাব পড়ে।

ব্লু হোয়েলের প্রভাব কমে আসার পরপরই প্রভাব বিস্তার করতে শুরু করেছে মোমো। ব্রিটেনের একটি ওয়েবসাইট ‘দ্যসান ডট কো ইউকে জানিয়েছে, এই প্রাণঘাতী গেম ছড়িয়ে পড়েছে মেক্সিকো, আর্জেন্টিনা, আমেরিকা, ফ্রান্স ও জার্মানি ও নেপালে।