২০২৬ বিশ্বকাপ হবে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকোতে | |

২০২৬ বিশ্বকাপ হবে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকোতে

রাশিয়া বিশ্বকাপের পর্দা উঠবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার। এর একদিন আগেই ২০২৬বিশ্বকাপ আয়োজক দেশের নাম ঘোষণা করেছে ফিফা। আর আয়োজন দেশের নামও চমক দেওয়ার মতো। কারণ এই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ আয়োজন করছে যাচ্ছে তিন দেশ। এর আগে যৌথ প্রযোজনায় বিশ্বকাপ দেখেছে বিশ্ব। প্রথমবারের মতো ২০০২ সালে জাপান-দক্ষিণ কোরিয়া যৌথভাবে বিশ্বকাপের আয়োজন করেছিল। ২০১৬ বিশ্বকাপ আয়োজন করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও মেক্সিকো মিলে।

কিন্তু ২০০২ বিশ্বকাপের পর ফিফা জানিয়েছিল যৌথ উদ্যোগে আর বিশ্বকাপ নয়। যৌথ উদ্যোগে অবশ্য ২০২৬ বিশ্বকাপ হচ্ছে না। হচ্ছে ত্রয়ীর আয়োজনে। এই টুর্নামেন্ট দিয়েই প্রথমবারের মতো তিন আয়োজক দেশ দেখবে বিশ্বকাপ।

২০২৬ বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বত্ব লড়াই ছিল দুই পক্ষের মধ্যে। একদিকে ছিলো কানাডা, মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্র। অন্যদিকে মরক্কো একাই আয়োজন করতে আগ্রহ দেখায়। তবে মস্কোকে ফিফার ৬৮তম কংগ্রেস অধিবেশনে ৬৯ ভোটের ব্যবধানে হারিয়েছে কানাডা, মেক্সিকো ও যু্ক্তরাষ্ট জোট।

তাঁরা মোট ১৩৪ ভোট পেয়েছে আর মরক্কোর বাক্সে পেড়েছ ৬৫ ভোট। এর আগে ১৯৯৪ সালের প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ পেয়েছিল উত্তর আমেরিকা মহাদেশ।

এছাড়া আরোও একটি অভিনবত্ব আনা হয়েছে এই বিশ্বকাপে। আর তা হলো এই বিশ্বকাপেই প্রথমবারের মতো ৪৮ দল অংশ নেবে। ম্যাচসংখ্যা হবে ৮০টি। এর মধ্যে ফাইনালসহ ৬০টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাষ্ট্রে। আর ১০টি করে ম্যাচ পেয়েছে কানাডা ও মেক্সিকোতে। এই তিন দেশের মধ্যে কানাডা প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে আয়োজনের সুযোগ পেয়েছে। ১৯৯৪ সালের পর সুযোগ পেল যুক্তরাষ্ট্র। আর মেক্সিকো ১৯৭০ ও ১৯৮৬ সালের পর আবার বিশ্বকাপ আয়োজক দেশ হতে চলেছে।

২০২৬ বিশ্বকাপ আয়োজনের সুযোগ পেয়ে যুক্তরাষ্ট্র ফুটবলের সভাপতি কার্লোস করডেইলো বলেন, ‘এটা আমাদের খুবই খুবই গুরুত্বপূর্ণ খবর। উত্তর আমেরিকার জন্য উল্লেখ যোগ্য এক ঘটনা।’