পদার্থ বিজ্ঞান প্রশ্নফাঁস, আটক ৬ | |

পদার্থ বিজ্ঞান প্রশ্নফাঁস, আটক ৬

জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলায় এসএসসি পরীক্ষার পদার্থ বিজ্ঞান বিষয়ে প্রশ্ন পত্র ফাঁসের ঘটনায় চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের শিক্ষক শহিদুল ইসলাম নিরব, শেরপুর জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী ইন্সট্রাক্টর মোঃ ফারুক আহমেদসহ ৬জনকে আটক করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ৯টায় সরিষাবাড়ী রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার স্কুল কেন্দ্রের পার্শ্ববর্তী বাসা থেকে তাদের প্রশ্নপত্র সমাধান করা কালে আটক করা হয়।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, সরিষাবাড়ী রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার স্কুল কেন্দ্র সংলগ্ন লুৎফর রহমানের ভাড়া বাসায় পরীক্ষা শুরুর আগে সকাল ৯টার দিকে ৫ পরীক্ষার্থী এবং ২ শিক্ষক মিলে এসএসসি পরীক্ষার পদার্থ বিজ্ঞান বিষয়ের প্রশ্ন মোবাইল থেকে বের করে সমাধান করছিল।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ফিরোজ আল মামুন, সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খান, ওসি (তদন্ত) তাহেরুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় শিক্ষক ও পরীক্ষার্থীদের মোবাইল থেকে প্রশ্ন সামাধান করা কালে ৬জনকে আটক করে থানায় নেয়া হয়। অপর ছাত্রী রুমানা আক্তার রিয়া পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়।

আটককৃতরা হলেন উপজেলার চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের ইংরেজী শিক্ষক শহিদুল ইসলাম নিরব, শেরপুর জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের সহকারী ইন্সট্রাক্টর স্থানীয় বলারদিয়ার গ্রামের বাসিন্দা এবং চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের শিক্ষক মোঃ ফারুক আহমেদ, উপজেলার চিলড্রেন্স হোম পাবলিক স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী মূলবাড়ী বাড়ি গ্রামের মুনিরুজ্জামানের কন্যা মেহেনাজ তাবাসসুম, সামর্থবাড়ি গ্রামের একেএম জালাল উদ্দিনের কন্যা পরাগ ফারদিনা, আরামনগর বাজার এলাকার আঃ রশীদের কন্যা রুমানা আক্তার রিয়া ও একই এলাকার মাসুদুর রহমানের কন্যা মারজিয়া মুনতাহা। এরা সবাই সরিষাবাড়ী রিয়াজ উদ্দিন তালুকদার স্কুল কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী।

ঘটনার অধিকতর তদন্তে মঙ্গলবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ রাসেল সাবরিন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, থানার অফিসার ইনচার্জকে নিয়ে ঘটনা স্থল পরিদর্শন করেন। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনার সাথে জড়িতদের সনাক্ত করতে প্রশাসনিক ভাবে তৎপর থাকায় আজ মঙ্গলবার গোপন সংবাদের ভিক্তিতে পৌরসভার আরামনগর বাজার এলাকার ভাড়াটিয়া লুৎফর রহমানের একটি কক্ষে উত্তর পত্র লিখা অবস্থায় কাগজপত্র, মোবাইলে বিগত পরিক্ষার প্রশ্নপত্রসহ ৩টি মোবাইল জব্দ করা হয়।

এ ঘটনায় জড়িত ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে ও নিয়মিত মামলাসহ শিক্ষার্থীরা অপ্রাপ্ত বয়স্ক হওয়ায় সমাজ সেবা কার্যালয়ের মাধ্যমে ব্যাবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে বলে তিনি জানান ।

সরিষাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল ইসলাম খান বলেন, প্রশ্ন ফাসের ঘটনায় ২ শিক্ষক এবং ৪জন ছাত্রীকে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে আরও নতুন নতুন তথ্য পাওয়া যাচ্ছে বলে তিনি জানান।